• ২১শে জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ , ৬ই শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ , ১৫ই মহর্‌রম, ১৪৪৬ হিজরি

‌নিপুর দুর্বলতা ও পছন্দ দুটিই ছিলেন আজাদ

bijoy71news
প্রকাশিত মে ২৬, ২০২০

নিজস্ব প্রতিবেদক :: হিরন মাহমুদ নিপু সিলেটের ছাত্র রাজনীতিতে আলোচিত এক নাম। তিনি জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপিত। মহানগর আওয়ামী লীগের সাবেক শিক্ষা সম্পাদক ও সিসিক কাউন্সিলর আজাদুর রহমান আজাদের অনুসারি ছিলেন। রাজনীতির মারপ্যাচে তিনি এখন আজাদ থেকে দূরে। তবে আজাদের কঠিন এই মুহূর্তে তাঁকে ভুলে থাকতে পারেননি সাবেক এ ছাত্রলীগ নেতা। নিপুর আবেগগণ স্ট্যাটাসই এর প্রমান।
মঙ্গলবার নিজের ফেসবুকে একটি স্ট্যাটাস দিয়েছেন নিপু। আমাদের পাঠকদের জন্য হুবুহু তা তুলে ধরা হলো।

নিপু তার স্ট্যাটাসে লিখেছেন-‘আজাদ ভাই করোনা পজিটিভ অস্বাভাবিক কিছু নয়।
শহরে পদার্পণ করেছি থেকে উনার পাশে। ভাই হিসেবে মানুষটাকে জানি যেমন, নেতা হিসেবেও ঐমানুষটা সম্পর্কে খুব ভাল করে জানি তাই প্রথম থেকে শংকিত ছিলাম আজাদ ভাইকে করোনা আক্রমন করতে পারে।
বিশ্ব যখন শারীরিক দুরত্বতা বজায় রাখার নির্দেশ দিয়েছে তখন উনি মানুষের কাঁদে নিজের হাত রেখেছে।এটাই উনার চরিত্র।
অনেকেই আমার লেখা দেখে অনেক ধরনের মন্তব্য করতে পারেন, যে যাই মন্তব্য করেন সমস্যা নেই কিন্তু আমি সত্য বলতে কখনো ভয় পাইনি ।সত্যি কথা হচ্ছে রাজনৈতিক সামাজিক বা ব্যক্তিগত উনার যে স্টাইল যে স্মার্টনেস রয়েছে তা আমাকে আকর্ষিত করত। আমার দুর্বলতা বা পছন্দ সবকিছু ছিলেন আজাদ ভাই। চিন্তা ভাবনায় ছিলেন আজাদ ভাই এমনকি রাত ঘুমেও স্বপ্নে দেখেছি আজাদ ভাই।
হয়ত পরিবেশ পরিস্থিতি নিষ্ঠুর রাজনীতির কারনে দুরে তাই বলে সত্য স্বীকার করতে কৃপনতা করতে পারিনা।
সব সময় ভাইয়ের মত দেখেছি।উনার কাছ থেকেও কখনো নেতা সুলভ আচরণ আমি পাইনি ।
মানুষটার সখ ভাবনা চিন্তা চেতনায় শুধু মানুষ আর মানুষ। সব সময় মানুষ পছন্দ করেন। ঘরে যান দেখবেন বসে সোফায় ঘুমাচ্ছেন। কারন মানুষ ঘরে রেখে ঘুমাতে পারেন না, মানুষ কে বলতেও পারেন না চলে যাও। আবার সকাল ৭-৮টা থেকে শুরু ।
কতটুকু স্বাস্থ্য সচেতন মানুষ চিন্তা করতে পারবেনা, রাজনীতি এবং মানুষের সাথে থাকা ,খেলাধুলা ছাড়া কোন ধরনের নেশা নেই , উনি সিগারেট পর্যন্ত পছন্দ করেন না ।
উনার পছন্দ অর্তকি আমলকি।খুব পরিশ্রমী উনার সাথে সাঁতার কাটতে যান হাঁটতে যান পারবেন না ।
এই স্বাস্থ্য সচেতন থাকার পরেও করোনা পজিটিভ সুতরাং আপনি আমি কিছুই না।
চিরন্তন সত্য হচ্ছে উনার জন্য দোয়া করা ছাড়া আমাদের কিছুই করার নেই ।’