• ১৬ই জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ , ২রা আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ , ১০ই জিলহজ, ১৪৪৫ হিজরি

সিলেটের চার উপজেলায় যারা বিজয়ী

bijoy71news
প্রকাশিত মে ৯, ২০২৪
সিলেটের চার উপজেলায় যারা বিজয়ী

ষষ্ঠ উপ‌জেলা প‌রিষদ নির্বাচ‌নের প্রথম ধা‌পে সি‌লেট জেলার ৪ উপ‌জেলায় নির্বাচন সম্পন্ন হ‌য়ে‌ছে।

চার উপ‌জেলার ম‌ধ্যে সিলেট সদরে চেয়ারম্যান নির্বা‌চিত হ‌য়ে‌ছেন জেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি সুজাত আলী রফিক, গোলাপগ‌ঞ্জে পুণরায় চেয়ারম‌্যান নির্বা‌চিত হ‌য়ে‌ছেন জেলা আওয়ামীলীগের সদস‌্য মঞ্জুর কা‌দির শা‌ফি এ‌লিম, দক্ষিণ সুরমায় চেয়ারম্যান নির্বা‌চিত হ‌য়ে‌ছেন উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মো. বদরুল ইসলাম, বিশ্বনা‌থে চেয়ারম‌্যান নির্বা‌চিত হ‌য়ে‌ছেন জেলা পরিষদের সদস্য ও উপজেলা আওয়ামী লীগের আইন বিষয়ক সম্পাদক অ্যাডভোকেট গিয়াস উদ্দিন আহমেদ।

বুধবার (৮ মে ) দু`এক‌টি বিচ্ছিন্ন ঘটনা ঘট‌লেও বড় ধর‌ণের কোন ঘটনা ছাড়াই সকাল ৮ টা থে‌কে বি‌কেল ৪ টা পর্যন্ত অনু‌ষ্ঠিত হয় ভো‌টগ্রহণ।

সি‌লেট সদর উপ‌জেলা:

সিলেট সদর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে জেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি সুজাত আলী রফিক বিজয়ী হয়েছেন।

বুধবার অনুষ্ঠিত নির্বাচনে  কাপ-পিরিচ প্রতীক নিয়ে প্রতিদ্বন্দ্বি প্রার্থীর চেয়ে প্রায় দিগুন ভোট পেয়েছেন তিনি।

উপজেলার ৬২ টি ভোট কেন্দ্রের মধ্যে ৬১ টিতে রফিক পেয়েছেন ২১ হাজার ৮৭৫ ভোট। তার নিকতম প্রতিদ্বন্দ্বী হিসেবে আছেন আনারস প্রতীকের আওয়ামী লীগ নেতা মো. সামসুল ইসলাম। তিনি পেয়েছেন ১১ হাজার ৬৩০।

এই উপজেলায় প্রার্থী ছিলেন ছয়জন। তারা হলেন- চেয়ারম্যান পদে শ্রমিক লীগ  সিলেট জেলা সভাপতি মো. এজাজুল হক (মোটরসাইকেল) স্বতন্ত্র প্রার্থী মো. আহাদ মিয়া (দোয়াত-কলম), আওয়ামী লীগ নেতা মো. সুজাত আলী রফিক (কাপ-পিরিচ), আওয়ামী লীগ নেতা মো. সামসুল ইসলাম (আনারস), আওয়ামী লীগ নেতা মিল্লাত আহমদ চৌধুরী (ঘোড়া) ও স্বতন্ত্র ডা. মো. খলিলুর রহমান (টেলিফোন)।

গোলাপগঞ্জ উপ‌জেলা:

সি‌লে‌টের গোলাপগ‌ঞ্জ উপ‌জেলায় বিপুল ভো‌টে চেয়ারম‌্যান প‌দে পুণরায় নির্বা‌চিত হ‌য়ে‌ছেন মঞ্জুর কা‌দির শা‌ফি এ‌লিম।
এছাড়া ভাইস চেয়ারম‌্যান নির্বা‌চিত হ‌য়ে‌ছেন মোহাম্মদ না‌বিদ হো‌সেন ও ম‌হিলা ভাইস চেয়ারম‌্যান নির্বা‌চিত হ‌য়ে‌ছেন সে‌লিনা আক্তার শিলা।

সকাল ৮ টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত  টানা ভোট গ্রহণ চলে। ভোট গণনা শে‌ষে রাত পৌনে ১০ টার দিকে ফলাফল ঘোষণা করেন উপজেলা নির্বাচন অফিসার ও রিটার্নিং কর্মকর্তা আহসান ইকবাল।

ঘোষিত ফলাফলে চেয়ারম্যান পদে মঞ্জুর কাদির শাফি চৌধুরী এলিমকে বিজয়ী ঘোষণা করা হয়।

তিনি নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী থেকে ৮ হাজার ৭৭২ ভোট বেশি পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। দোয়াত কলম প্রতীক নিয়ে তিনি পেয়েছেন ৩৭ হাজার ৭৮৯ ভোট। তাঁর নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী আবু সুফিয়ান উজ্জ্বল পেয়েছেন ২৯ হাজার ১৭ ভোট।

চেয়ারম্যান পদে অপর প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী শাহিদুর রহমান চৌধুরী জাবেদ পেয়েছেন ১৫ হাজার ১৯৭ ভোট।

এদিকে, ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৫ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন। নির্বাচনে ২১ হাজার ৬৩০ ভোট পেয়ে বিজয় লাভ করেন চশমা প্রতীকের প্রার্থী মো. নাবেদ হোসেন। তাঁর নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী মো.লবিবুর রহমান টিউবওয়েল প্রতীক নিয়ে পেয়েছেন ১৭ হাজার ৫২০ ভোট।

নির্বাচনে টিয়া পাখি প্রতীক নিয়ে আবু সুফিয়ান মোহাম্মদ আজম পেয়েছেন ১৫ হাজার ৭৮৮ ভোট, তালা প্রতীক নিয়ে ফরহাদ আহমদ পেয়েছেন ১৫হাজার ৪১৩ ভোট। এছাড়াও বই প্রতীকের প্রার্থী আকমল হোসেন পেয়েছেন ৯ হাজার ৫৩৯ ভোট।

অপরদিকে মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে দুইজন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন।

এরমধ্যে সেলিনা আক্তার শিলা ৪৬ হাজার ৭৯৪ ভোট পেয়ে জয় লাভ করেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী নার্গিছ আক্তার পেয়েছেন ৩১ হাজার ৯৫৭ ভোট।

দ‌ক্ষিণ সুরমা উপ‌জেলা:

সিলেটের দক্ষিণ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মো. বদরুল ইসলাম বেসরকারিভাবে বিজয়ী হয়েছেন।

নির্বাচনে টেলিফোন প্রতীক নিয়ে তিনি নির্বাচিত হন।

উপজেলা নির্বাচন অফিস সূত্রে জানা গেছে, বদরুল ইসলাম ২১ হাজার ৭৬৮ ভোট পেয়ে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন। তার নিকতম প্রতিদ্বন্দ্বী উপজেলা সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ শামীম আহমদ (মোটরসাইকেল) পেয়েছেন ১৩ হাজার ৯৮৮ ভোট।

তৃতীয় স্থানে থাকা যুক্তরাষ্ট্র শ্রমিক লীগের সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ জুয়েল আহমদ (ঘোড়া) পেয়েছেন ১২ হাজার ৩০৭টি ভোট।

বুধবার (৮ মে) সকাল ৮টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত এ উপজেলায় শান্তিপূর্ণভাবে ভোগ্রহণ সম্পন্ন হয়।

উল্লেখ্য, এ উপজেলায় চেয়ারম্যান পদে লড়েছেন ৫ জন। তারা হলেন- উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ শামীম আহমদ (মোটরসাইকেল),  উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মো. বদরুল ইসলাম (টেলিফোন), উপজেলা আওয়ামী লীগের সদস্য মো. মইনুল ইসলাম (আনারস), যুক্তরাষ্ট্র শ্রমিক লীগের সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ জুয়েল আহমদ (ঘোড়া) ও আঞ্চালিক নাটকের অভিনেতা মো. সাহেদ মোশারফ (কাপ পিরিচ)।

এই উপজেলার বর্তমান চেয়ারম্যান আবু জাহিদ এবার নির্বাচনে অংশ নেননি।

বিশ্বনাথ উপ‌জেলা:

সিলেটের বিশ্বনাথ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের চুড়ান্ত ফলাফল এখন পর্যন্ত প্রকাশ করা না হ‌লেও প্রাথ‌মিক পর্যা‌য়ে জেলা পরিষদের সদস্য ও উপজেলা আওয়ামী লীগের আইন বিষয়ক সম্পাদক অ্যাডভোকেট গিয়াস উদ্দিন আহমেদ (আনারস) প্রতীক নিয়ে এগিয়ে রয়েছেন।

এখন পর্যন্ত যতো ইউনিয়ন ও ওয়ার্ডের ফলাফল জানা গেছে, এর মধ্যে বেশিরভাগেই গিয়াস উদ্দিন আহমেদ এগিয়ে রয়েছেন বেশি ভোট পেয়ে।

বিভিন্ন ইউনিয়নের ৪৮ সেন্টারের ফলাফলে প্রবাসী অ্যাডভোকেট গিয়াস উদ্দিন আহমেদ ৮৮৪৯ ভোট পেয়ে এগিয়ে আছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান ও জেলা বিএনপির সাবেক সহসভাপতি যুক্তরাজ্য প্রবাসী মোহাম্মদ সুহেল আহমদ চৌধুরী (কাপ পিরিচ) প্রতীক নিয়ে ৮৭৫৮ টি ভোট। যুক্তরাজ্য বিএনপির সহসাংগঠনিক সম্পাদক ও বিশ্বনাথ স্পোটর্স ডেভোলাপমেন্ট ট্রাস্ট ইউকের যুগ্ম সম্পাদক যুক্তরাজ্য প্রবাসী মো. সেবুল মিয়া (দোয়াত-কলম) প্রতীক নিয়ে ৮০৯২ ভোট। আর বিশ্বনাথ পৌর আওয়ামী লীগের যুগ্ম আহবায়ক আলতাব হোসেন (টেলিফোন) ৬৬৫৪ ভোট পেয়েছেন।