• ১৬ই এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ , ৩রা বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ , ৭ই শাওয়াল, ১৪৪৫ হিজরি

স্বেচ্ছাসেবকলীগ নেতা হত্যা, নারী ইউপি চেয়ারম্যান কারাগারে

bijoy71news
প্রকাশিত মার্চ ৩১, ২০২৪
স্বেচ্ছাসেবকলীগ নেতা হত্যা, নারী ইউপি চেয়ারম্যান কারাগারে

স্বেচ্ছাসেবক লীগের এক নেতা হত্যার ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে সিদ্ধকাঠি ইউনিয়নের ইউপি চেয়ারম্যান কাজী জেসমিন আক্তারকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

শনিবার (৩০ মার্চ) বিকেলে গ্রেপ্তারকৃত চেয়ারম্যান জেসমিন কাজীকে ঝালকাঠির জ্যেষ্ঠ বিচারিক হাকিম আদালতে পাঠায় পুলিশ। এ সময় বিচারক এএইচএম ইমরানুর রহমান স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি নিয়ে তাকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন নলছিটি থানার ওসি মো.মুরাদ আলী।

নিহত জিয়াউল হাসান ফুয়াদ কাজী সিদ্ধকাঠি ইউনিয়ন স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি। এ ঘটনায় ৮ জানুয়ারি রাতে ফুয়াদের বড় ভাই ফয়সাল কাজী অজ্ঞাতনামা ব্যক্তিদের আসামি করে নলছিটি থানায় মামলা করেন।

এতে শুক্রবার রাত সাড়ে ১২টার দিকে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) মো. মহিতুল ইসলামের নেতৃত্বে পুলিশের একটি টিম উপজেলার সিদ্ধকাঠি ইউনিয়নের চৌদ্দবুড়িয়া কাজী বাড়ি থেকে চেয়ারম্যান কাজী জেসমিন আক্তারকে (৪০) গ্রেপ্তার করে।

নলছিটি থানার ওসি মোহাম্মদ মুরাদ আলী বলেন, স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা ফুয়াদ কাজী হত্যার অভিযোগে এর আগে ইউপি সদস্য রফিকুল ইসলাম হাওলাদারসহ তিনজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। এ ঘটনায় হত্যার সঙ্গে জড়িত সন্দেহে সিদ্ধকাঠি ইউনিয়নের চেয়ারম্যান কাজী জেসমিন আক্তারকেও গ্রেপ্তার করা হয়েছে। ফুয়াদ কাজী হত্যার ঘটনায় ওই চেয়ারম্যানের সংশ্লিষ্টতা নিশ্চিত হয়েই তাকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন- উপজেলার রাজপাশা গ্রামের বাসিন্দা সাইফুল ইসলাম, সিদ্ধকাঠি ইউনিয়ন পরিষদের ৭ নম্বর ওয়ার্ডের সদস্য রফিকুল ইসলাম হাওলাদার (৪০), চৌদ্দবুড়িয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নৈশপ্রহরী মো. শাহাদাত হোসেন (৪০)।

ঝালকাঠি অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) মো. মহিতুল ইসলাম জানান, জিয়াউল আহসান ফুয়াদ কাজী হত্যার ঘটনায় সম্পৃক্ততার প্রাথমিক প্রমাণ পাওয়ায় সিদ্ধকাঠি ইউনিয়নের চেয়ারম্যান কাজী জেসমিন আক্তারকে তার নিজ বাড়ি থেকে শুক্রবার রাতে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

ঝালকাঠির পুলিশ সুপার মোহাম্মদ আফরুজুল হক বলেন, ফুয়াদ কাজী হত্যা মামলায় এর আগে গ্রেপ্তার হওয়া তিনজনের আদালতে দেওয়া স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দির ভিত্তিতে কাজী জেসমিন আক্তারকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। শনিবার দুপুরে তাকে ঝালকাঠি আদালতে পাঠানোর পর ১৬৪ ধারায় আদালতে জবানবন্দি শেষে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

প্রসঙ্গত, গত ৭ জানুয়ারি রাতের দিকে সিদ্ধকাঠি ইউনিয়নের চৌদ্দবুড়িয়া গ্রামের মসজিদ বাড়ি এলাকায় আওয়ামী লীগের বিজয় মিছিল শেষে বাচ্চার খাবার কিনে বাড়ি ফেরার পথে চৌদ্দবুড়িয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের মাঠে ওই ইউনিয়নের স্বেচ্ছাসেবক লীগ সভাপতি ফুয়াদকে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে হত্যা করে দুর্বৃত্তরা।